সংবাদ শিরোনাম

 

আগামীকাল বৃহস্পতিবার (৩০ নভেম্বর) প্রকাশিত হতে যাচ্ছে ৪৬তম বিসিএসের বিজ্ঞপ্তি। এতে ক্যাডার ও নন–ক্যাডার পদ নির্দিষ্ট করা হয়েছে। গত ১০টি বিসিএসের মধ্যে সবচেয়ে বেশি ক্যাডার পদ রেখে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয় সরকারি কর্ম কমিশনে (পিএসসি) ৪৬তম বিসিএসের চাহিদাপত্র পাঠিয়েছে। এই বিসিএসের পদ নির্দিষ্ট করার বিষয়টি জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের নিয়োগ শাখা থেকে নিশ্চিত করা হয়েছে।

 

পিএসসি সূত্র জানিয়েছে, মন্ত্রণালয় যেসব পদ পাঠিয়েছে, সেখান থেকে ক্যাডারের ৩ হাজার ১০০ পদ ও নন–ক্যাডারে ৩০০ পদ নির্দিষ্ট করা হচ্ছে, যা আগামীকাল বিজ্ঞপ্তি আকারে প্রকাশিত হবে।

 

পিএসসি বলছে, ক্যাডারে ও নন–ক্যাডারে এই পদ মানেই চূড়ান্ত নয়, এটি সরকার বাড়াতে পারে। তাই ক্যাডার ও নন–ক্যাডারের পদ এটাই চূড়ান্ত নয়। ওই সূত্র জানায়, ৪৬তম বিসিএসে আবেদনের বয়স গণনা হবে ১ নভেম্বর থেকে। বিজ্ঞপ্তিতে আবেদনের শেষ তারিখ উল্লেখ করা হবে। তবে কোন ক্যাডারে কতজন নেওয়া হবে, সেটি নির্দিষ্ট করে না বললেও স্বাস্থ্য ক্যাডারে উল্লেখযোগ্য পদে আবেদনের সুযোগ রাখা হবে বলে জানা গেছে।

 

পিএসসি সূত্রটি আরও জানায়, সর্বশেষ ৪৫তম বিসিএস ছিল গত পাঁচ বিসিএসের মধ্যে সবচেয়ে বেশি পদ। এবার ৪৬তম বিসিএসে রেকর্ড হচ্ছে। এটি গত ছয় বিসিএসকে ছাড়িয়ে যাবে। ৪৫তম বিসিএসে প্রথম ক্যাডারের পাশাপাশি নন-ক্যাডারের পদও উল্লেখ রেখে বিজ্ঞপ্তি প্রকাশের উদ্যোগ নেওয়া হয়।

 

কোন বিসিএসে কত পদ
৩৪তম বিসিএসে ২ হাজার ১৫৯ জন, ৩৫তম বিসিএসে ১ হাজার ৮০৩, ৩৬তম বিসিএসে ২ হাজার ১৮০, ৩৭তম বিসিএসে ১ হাজার ২২৬, ৩৮তম বিসিএসে ২ হাজার ২৪, ৪০তম বিসিএসে ১ হাজার ৯২৯ ও ৪১তম বিসিএসে ২ হাজার ৫২০ জনকে বিভিন্ন ক্যাডারে নিয়োগ দেওয়া হয়। এছাড়া ৪৩তম বিসিএসের বিভিন্ন ক্যাডারে ১ হাজার ৮১৪ জন, ৪৪তম থেকে ১ হাজার ৭১০ ও সর্বশেষ ৪৫তম থেকে ২ হাজার ৩০৯ জনকে বিভিন্ন ক্যাডারে নিয়োগ দেওয়ার কথা রয়েছে। ৩৯তম ও ৪২তম বিসিএস দুটি ছিল চিকিৎসকদের জন্য বিশেষ বিসিএস।

 


মতামত জানান :

 
 
 
কপিরাইট © ময়মনসিংহ প্রতিদিন ডটকম - সর্বসত্ত্ব সংরক্ষিত | উন্নয়নে হোস্টপিও.কম