সংবাদ শিরোনাম

 

তথ্য ও সম্প্রচার প্রতিমন্ত্রী মোহাম্মদ আলী আরাফাত স্মার্ট বাংলাদেশ গড়তে নতুন প্রজন্মকে আওয়ামী লীগের সঙ্গে সম্পৃক্ত হওয়ার আহ্বান জানিয়ে বলেছেন, আওয়ামী লীগই একমাত্র দল যারা বাংলাদেশের মানুষের আশা-আকাঙ্খা পূরণ করে’।
তথ্য প্রতিমন্ত্রী বলেন, ‘স্মার্ট ওয়ার্ল্ডের সামনে স্মার্ট বাংলাদেশ গড়তে আমরা স্মার্ট আওয়ামী লীগ গড়তে চাই। সেজন্য আমি নতুন প্রজন্মকে স্মার্ট বাংলাদেশ গড়তে আওয়ামী লীগের সঙ্গে যুক্ত হওয়ার জন্য আহ্বান জানাচ্ছি।’

রাজধানীর তেজগাঁওয়ে ঢাকা জেলা আওয়ামী লীগ কার্যালয়ে আয়োজিত ‘ইতিহাসের গতিধারায় বঙ্গবন্ধু থেকে শেখ হাসিনা’ শীর্ষক সংবাদচিত্র প্রদর্শনী পরিদর্শন শেষে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে আরাফাত এসব কথা বলেন।
আওয়ামী লীগের ৭৫তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে ঢাকা জেলা আওয়ামী লীগ এ আলোকচিত্র প্রদর্শনীর আয়োজন করা হয়।
আওয়ামী লীগের গৌরবময় ইতিহাস তুলে ধরে প্রতিমন্ত্রী বলেন, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ দক্ষিণ এশিয়ায় সমৃদ্ধ ইতিহাস ও ঐতিহ্যের অন্যতম বৃহৎ রাজনৈতিক দল।

তিনি বলেন, দেশের স্বাধীনতা ও সার্বভৌমত্ব অর্জনের প্রতিটি গণতান্ত্রিক আন্দোলন ও সংগ্রামে নেতৃত্ব দিতে আওয়ামী লীগের গৌরবময় ভূমিকা রয়েছে।
আওয়ামী লীগ ছাড়া আর কোন বিকল্প নেই উল্লেখ করে সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে মোহাম্মদ আলী আরাফাত জানান, ‘আওয়ামী লীগের ৭৫তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে নতুন প্রজন্ম কেন আওয়ামী লীগের রাজনীতি করবে সে বিষয়ে তিনি একটি ছোট লেখা লিখেছেন।’
প্রতিমন্ত্রী বলেন, আওয়ামী লীগের মতো মুক্তিযুদ্ধের চেতনাকে ধারণ করা, লালন করা এবং জনগণের মধ্য থেকে জন্ম নেয়া এবং বেড়ে উঠা আর কোন রাজনৈতিক দল বাংলাদেশে মূলধারায় নেই।

তিনি বলেন, কিছু দল আছে যারা ক্যান্টনমেন্টে বিভিন্ন সামরিক শাসকের পকেট থেকে জন্ম নিয়েছে অথবা সরাসরি মুক্তিযুদ্ধ বিরোধী দল। আরও কিছু দল আছে যারা খুবই দুর্বল এবং কিছু দাবি দাওয়া করা ছাড়া তাদের আর কোন সক্ষমতা নাই।

তিনি বলেন, আওয়ামী লীগই একমাত্র দল যাদেরকে বাংলাদেশের জনগণের আশা-আকাঙ্খা পূরণ করতে হয়। এদেশের স্বাধীনতার আকাক্সক্ষা আওয়ামী লীগ পূরণ করেছে।’
জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের নেতৃত্বে আওয়ামী লীগ মুক্তিযুদ্ধের মাধ্যমে দেশের স্বাধীনতা এনে দিয়েছে উল্লেখ করে তিনি বলেন, পরবর্তীতে সংগ্রাম ও আন্দোলনের মাধ্যমে গণতন্ত্র প্রতিষ্ঠায়ও দলটির অবদান রয়েছে।
প্রতিমন্ত্রী বলেন, এখন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বাধীন আওয়ামী লীগ সরকার দেশের উন্নয়ন ও অগ্রগতির যাত্রায় সর্বাত্মক প্রচেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে।

আরাফাত বলেন, ‘বঙ্গবন্ধু কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে দেশ অর্থনৈতিক মুক্তির পথে এগিয়ে যাচ্ছে। ৭৫ বছরের দীর্ঘ যাত্রায় আওয়ামী লীগের ত্রুটি-বিচ্যুতি ও ব্যর্থতার চেয়ে দেশের জন্য অনেক বেশি গৌরবময় ভূমিকা, অর্জন ও অবদান রয়েছে।
এক প্রশ্নের জবাবে প্রতিমন্ত্রী বলেন, ভবিষ্যৎ বাংলাদেশ গড়ার লক্ষ্যে গৃহীত উন্নয়ন নীতিগুলো ইউনিয়ন পর্যায় পর্যন্ত তুলে ধরতে তথ্য ও সম্প্রচার মন্ত্রণালয় সারাদেশে একটি প্রকল্প বাস্তবায়ন করছে।

তিনি বলেন, “স্মার্ট বাংলাদেশ গড়তে স্মার্ট নাগরিক দরকার। এটি করার জন্য, আমাদের দৃষ্টিভঙ্গি ও নীতির সাথে জনগণকে সম্পৃক্ত করতে হবে। তাই, আমরা স্মার্ট বাংলাদেশ গড়ার লক্ষ্য অর্জনে জনগণের সাথে যোগাযোগের জন্য তাদের অভিন্ন মূলমন্ত্রের আওতায় আনতে কাজ করছি।”
এ সময় অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন ঢাকা জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি বেনজীর আহমেদ, সাধারণ সম্পাদক পনিরুজ্জামান তরুণ, সহ-সভাপতি কাজী শওকত হোসেন, সাংগঠনিক সম্পাদক হালিমা আক্তার লাবণ্য ও শাকুর হোসেন শাকু, দপ্তর সম্পাদক আরমান হোসেন অপু, উপ-দপ্তর সম্পাদক নাহিদুল আলম নাদিম, উপ-প্রচার সম্পাদক শরীফ হাসান প্রমুখ।


মতামত জানান :

 
 
 
কপিরাইট © ময়মনসিংহ প্রতিদিন ডটকম - সর্বসত্ত্ব সংরক্ষিত | উন্নয়নে হোস্টপিও.কম