সংবাদ শিরোনাম

 

বাংলাদেশ যে স্মার্ট বাংলাদেশ গড়ার প্রত্যয়ে এগিয়ে যাচ্ছে সেখানে আরো বেশি সহযোগিতা প্রদান করে গুরুত্বপূর্ণ অবদান রাখার জন্য ওপেক ফান্ডকে অনুরোধ জানিয়েছেন অর্থমন্ত্রী আবুল হাসান মাহমুদ আলী।

মঙ্গলবার (২৫ জুন) অর্থ মন্ত্রণালয়ের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

অর্থমন্ত্রী আবুল হাসান মাহমুদ আলীর নেতৃত্বে প্রতিনিধি দল ওপেক ফান্ড প্রাইভেট সেক্টর অপারেশনের ২৫তম বার্ষিকীতে যোগদিতে অস্ট্রিয়ার ভিয়েনা সফর করছেন। সেখানে অর্থমন্ত্রী সাইডলাইন মিটিংয়ে ওপেক ফান্ডের প্রেসিডেন্ট ড. আবদুলহামিদ আলখালিফার সঙ্গেও সাক্ষাৎকালে তিনি এ অনুরোধ জানান।
বাজেট সহায়তা প্রদান করে কোভিডের সময়ে বাংলাদেশকে সহায়তা করার জন্য ওপেক তহবিলকে ধন্যবাদ জানিয়ে অর্থমন্ত্রী বলেন, বাংলাদেশের বেসরকারি খাতে সহায়তা প্রদানে তহবিলের উদ্যোগ প্রশংসনীয়। এসময় বাংলাদেশের আর্থ-সামাজিক উন্নয়নে ৩২টি প্রকল্পের অনুকূলে ৬৯৩.৬১ মিলিয়ন মার্কিন ডলার প্রদানের মাধ্যমে অবদানের জন্য ওপেক তহবিলকে ধন্যবাদ জানান তিনি।

ওপেক ফান্ডের প্রেসিডেন্ট বাংলাদেশের সাম্প্রতিক উন্নয়নে বিস্ময় প্রকাশ করে বলেন, বাংলাদেশের বিশ্বস্ত উন্নয়ন সহযোগী হিসেবে ওপেক তহবিল অবশ্যই বাংলাদেশের উন্নয়ন সহায়তা বৃদ্ধি করবে। তিনি অর্থমন্ত্রী কর্তৃক প্রদত্ত একটি ফ্রেমওয়ার্ক চুক্তির ধারণা গ্রহণ করেন এবং ওপেক বৃহত্তর সহযোগিতার জন্য ৩ থেকে ৫ বছরের জন্য ফ্রেমওয়ার্ক চুক্তি স্বাক্ষর করবে বলে জানান তিনি।

এরআগে অর্থমন্ত্রী কুয়েত ফান্ড ফর আরব ইকোনমিক ডেভেলপমেন্ট (কেএফএইডি) এর ভারপ্রাপ্ত মহাপরিচালক ওয়ালিদ আল বাহারের সাথে সাক্ষাৎ করেন। তিনি কুয়েত ফান্ড ফর আরব ইকোনমিক ডেভেলপমেন্টের ১৯৭৪ সাল হতে অব্যাহত সমর্থন ও সহায়তার জন্য কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন। আগামীতে আরো সহায়তা বৃদ্ধির জন্যও অর্থমন্ত্রী অনুরোধ করেন।

ভারপ্রাপ্ত মহাপরিচালক বাংলাদেশের সাম্প্রতিক উন্নয়নের কথা উল্লেখ করেন এবং আশ্বস্ত করেন যে বাংলাদেশের উন্নয়নকে সহায়তা করতে তহবিল আরো উদপাদনশীল প্রক্রিয়ায় অব্যাহত রাখা হবে। সরকারি খাতের পাশাপাশি তিনি বাংলাদেশের বেসরকারি খাতের জন্যও সহায়তা করতে আগ্রহ প্রকাশ করেন।

বৈঠকের পর বাংলাদেশ সরকার এবং কুয়েত ফান্ড ফর আরব ইকোনমিক ডেভেলপমেন্ট ফান্ডের মধ্যে খুলনা জেলায় চুনকুড়ি নদীর উপর “চুনকুড়ি সেতু প্রকল্প”এর জন্য একটি ঋণ চুক্তিও স্বাক্ষরিত হয়। প্রকল্পের মোট ব্যয় হবে ৮৬.৯১ মিলিয়ন মার্কিন ডলার, যার মধ্যে ৪২.২০ মিলিয়ন কেএফএইডি এবং ৩০ মিলিয়ন দেবে আবুধাবি ফান্ড ফর ডেভেলপমেন্ট। প্রকল্পটির লক্ষ্য হচ্ছে বাংলাদেশের দক্ষিণ-পশ্চিম অঞ্চলের অর্থনৈতিক ও সামাজিক উন্নয়ন বৃদ্ধি করা এবং রাজধানী ঢাকার সাথে এই অঞ্চলের সরাসরি সড়ক যোগাযোগের মাধ্যমে যাত্রী ও মালবাহী যানবাহন চলাচল সহজ করা।

উল্লেখ্য, অর্থমন্ত্রী আবুল হাসান মাহমুদ আলীর নেতৃত্বে ওপেক ফান্ড ডেভেলপমেন্ট ফোরাম ২০২৪-এ যোগ দিতে বাংলাদেশ প্রতিনিধি দল ভিয়েনা, অস্ট্রিয়া সফর করছেন। অর্থ প্রতিমন্ত্রী ওয়াসিকা আয়শা খান, অস্ট্রিয়ায় নিযুক্ত বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত আসাদ আলম সিয়াম এবং অর্থনৈতিক সম্পর্ক বিভাগের অতিরিক্ত সচিব মিরানা মাহরুখ প্রতিনিধি দলের সদস্য হিসাবে রয়েছেন।


মতামত জানান :

 
 
 
কপিরাইট © ময়মনসিংহ প্রতিদিন ডটকম - সর্বসত্ত্ব সংরক্ষিত | উন্নয়নে হোস্টপিও.কম