সংবাদ শিরোনাম

 

শীতের নানা রকম সবজিতে ছেয়ে গেছে বাজার। বিক্রি হচ্ছে দেদার। অবরোধ-হরতালের তেমন কোনও প্রভাব না থাকার উত্তরাঞ্চল থেকে আসা বিভিন্ন ধরনের সবজি পাওয়া যাচ্ছে রাজধানীর বাজারগুলোতে। শুক্রবার ছুটির দিন হওয়ায় বাজারে সবজির দোকানগুলোতে ক্রেতাদের ভীড়ও দেখা গেছে।

 

শুক্রবার (২২ ডিসেম্বর) রাজধানীর নিউ মার্কেট, আনন্দবাজার, হাতিরপুল ও আজিমপুরের ছাপড়া মসজিদ কাঁচাবাজার ঘুরে এমন চিত্র দেখা গেছে।

ক্রেতা ও বিক্রেতাদের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, সারা বছরই বিভিন্ন রকম শাকসবজি পাওয়া যায় এখন। তবে শীতের সবজির স্বাদই আলাদা। তাই ক্রেতারা অপেক্ষায় থাকেন কখন বাজারে তাদের পছন্দের সব সবজি পাওয়া যাবে। নতুন টমেটো, গাজর, পেঁয়াজ কলি, ফুলকপি, বাধাকপি, মটরশুঁটি, শীম, লাউ, নতুন আলু এগুলোর চাহিদা যেমন বেশি, তেমনি ক্রেতাদের আগ্রহ ক্যাপসিকাম বা ব্রোকোলির মতো বিদেশি সবজিতেও।

 

 

আজিমপুর ছাপড়া মসজিদ বাজারে সবজি বিক্রেতা শফিকুল ইসলাম জানান, কোন সবজি নেই বাজারে? সবই পাওয়া যাচ্ছে সাধ্যের মধ্যে। মাঝখানে পেঁয়াজের দাম বাড়লেও সেটা এখন কমে এসেছে। পুরনো পেঁয়াজ ১৬০ টাকায় ও নতুন পেঁয়াজ ১৪০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। ডাটাসহ পেঁয়াজের কেজি ১০০ টাকা। পেঁয়াজের কলির দাম কেজি হিসেবে ৮০ টাকা ও আঁটি হিসাবে ২০ টাকা। তরকারি ও সালাদের জন্য অনেকেই পেঁয়াজের কলি নিচ্ছেন।

পেঁয়াজের কলি কিনতে আসা এক ক্রেতা জানান, কলির ঝাঁজ অনেকটাই পেঁয়াজের মতো, দামও কম। এছাড়া সালাদেও এসব ডাটা ব্যবহার করা যাচ্ছে। তাই কিনছি।

নিউ মার্কেট কাঁচা বাজারে দেখা যায়, মান ভেদে শীম, গাজর, বেগুন, করলা, পটল, ধুন্দল ও কচুর লতি বিক্রি হচ্ছে ৭০ থেকে ৮০ টাকায়। টমেটো, বরবটি, ঢেড়স, ধনেপাতা ও কাঁচামরিচ বিক্রি হচ্ছে প্রতি কেজি ১০০ টাকায়। লাউ আকার ভেদে ৭০ থেকে ১০০ টাকা এবং ফুলকপি ও বাঁধাকপি প্রতিটির দাম ৪০ থেকে ৫০ টাকা। এছাড়া বাজারে নতুন আলু ৭০ টাকা ও পুরনো আলু ৬০ টাকা দরে বিক্রি করতে দেখা যায়।

 

মাছ বাজারে মাছের দাম স্থিতিশীল দেখা গেছে। ইলিশ এক কেজি সাইজের ওপরে কেজি ২০০০ টাকা এবং ছোট সাইজেরগুলো ৮০০ থেকে ১৪০০ টাকা পর্যন্ত বিক্রি হচ্ছে। রুই ও কাতল মাছ ৩৫০ থেকে ৪৫০, চিংড়ি মাছ আকার ভেদে ৪০০ থেকে ১০০০ টাকা, এবং রুপচাঁদা মাছ বিক্রি হচ্ছে ১০০০ টাকায়। এছাড়া তেলাপিয়া ও চাষের কই ২২০ থেকে ২৫০ এবং পাঙ্গাস মাছ বিক্রি হচ্ছে ২০০ টাকা কেজি দরে।

মাংসের দোকানে দেখা গেছে ব্রয়লার মুরগি ১৮০ থেকে ১৯০ টাকা, কক মুরগি ২৯৫-৩০৫ টাকা, লেয়ার মুরগি ২৭০ টাকা, দেশি মুরগি ৫৫০ টাকা, গরুর মাংস ৬৫০ টাকা কেজি দরে বিক্রি হচ্ছে। এছাড়া প্রতি ডজন লাল ডিম ১২০ টাকা, সাদা ডিম ১১০ টাকা দরে বিক্রি হচ্ছে।

 


মতামত জানান :

 
 
 
কপিরাইট © ময়মনসিংহ প্রতিদিন ডটকম - সর্বসত্ত্ব সংরক্ষিত | উন্নয়নে হোস্টপিও.কম