সংবাদ শিরোনাম

 

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, নির্বাচনকে যারা বাধাগ্রস্ত করছে তাদের ওপর নিষেধাজ্ঞা আসা উচিত। এসব বিষয়ে তো সভ্য দেশগুলো কিছু বলছে না।

আজ বুধবার (২৯ নভেম্বর) সকালে আওয়ামী লীগ সভাপতির ধানমন্ডির রাজনৈতিক কার্যালয়ে এক বিফ্রিংয়ে তিনি এ কথা বলেন।

তিনি বলেন, বিএনপির হরতাল করছে। গাড়ি পোড়াচ্ছে। পুলিশ হত্যা করেছে। প্রকাশ্যে নির্বাচনের বিরুদ্ধে অবস্থান নিয়েছে। মানুষের ওপর অত্যাচার করে সংবিধানকে চ্যালেঞ্জ করছে। তাদের সন্ত্রাসী কার্যক্রম ঢেকে রাখার মতো নয়। সবাই সব কিছু দেখছে। হামলা করছে তাদের কী বিচার হবে না?

 

ওবায়দুল কাদের বলেন, যারা অপকর্ম করে শাস্তিযোগ্য অপরাধ করে তাদের বিরুদ্ধে মামলা হবেই।

টেকনোক্যাট তিন মন্ত্রী-প্রতিমন্ত্রীদের পদত্যাগ প্রসঙ্গে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন, সংবিধান অনুযায়ী নির্বাচনকালীন সরকারে টেকনোক্যাট মন্ত্রী এমপি থাকতে পারে না।

বিএনপি নিজেরাই নির্বাচনের বাইরে রয়েছে মন্তব্য করে ওবায়দুল কাদের বলেন, আওয়ামী লীগ কাউকে নির্বাচনের বাইরে রাখতে চায় না। বিএনপি নিজেরাই নির্বাচনের বাইরে রয়েছে। তাদের কেউ বাইরে রাখেনি।

 

মনোনয়ন পাওয়া নেতাকর্মীদের উদ্দেশে দলটির সাধারণ সম্পাদক বলেন, মনোনয়ন জমা দেওয়ার সময় স্লোগান দেওয়া যাবে না।

জোটসঙ্গীদের নিয়ে করা এক প্রশ্নের জবাবে ওবায়দুল কাদের বলেন, শরিক হলেই তাকে মনোনয়ন দেওয়া হবে না। নির্বাচিত হওয়ার মত জনপ্রিয় যোগ্য মানুষকেই দেওয়া যাবে।

 

সময়সীমা অতিক্রম করে নির্বাচনের তফসিল ঘোষণার তারিখ পরিবর্তন আওয়ামী লীগ সমর্থন করে না বলে জানান আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক।

সংবাদ সম্মেলনে অন্যদের মধ্যে আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক বিএম মোজাম্মেল হক, দফতর সম্পাদক ব্যারিস্টার বিপ্লব বড়ুয়া, মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক সম্পাদক মৃণাল কান্তি দাস, উপ-দফতর সম্পাদক সায়েম খান উপস্থিত ছিলেন।

 


মতামত জানান :

 
 
 
কপিরাইট © ময়মনসিংহ প্রতিদিন ডটকম - সর্বসত্ত্ব সংরক্ষিত | উন্নয়নে হোস্টপিও.কম