সংবাদ শিরোনাম

 

বাংলাদেশ ও নেপালের বন্ধুপ্রতিম দেশ ভারতের মাটি ব্যবহার করে শেরপুর জেলার নাঁকুগাও স্থল বন্দর দিয়ে দু’দেশের নানা পণ্য আমদানি-রপ্তানীর সহজ ও অবাধ ব্যবসা-বাণিজ্যের অমিত সম্ভাবনা দেখছেন বাংলাদেশে নিযুক্ত নেপালের রাষ্ট্রদূত ড. বংশী ধর মিত্র। তিনি বৃহস্পতিবার দুপুরে নাঁকুগাও স্থল বন্দর সরজমিনে পরিদর্শন করেন।

নালিতাবাড়ি উপজেলা নির্বাহী অফিসার হেলেনা পারভীন নেপালের রাষ্ট্রদূতের উদ্ধৃতি জানান, রাজধানী ঢাকার সাথে নেপালের ব্যবসা-বাণিজ্যের ব্যাপারে আন্তর্জাতিক ট্রানজিট প্রটোকলে সহজ রুট হতে পারে নাঁকুগাও স্থল বন্দর। এ ব্যাপারে সম্ভব্যতা যাচাইয়ের জন্য নেপাল ও বাংলাদেশের বাণিজ্য মন্ত্রণালয়কে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নেয়ার আহবান জানিয়েছেন নেপালের রাষ্ট্রদূত। সুপ্রশস্ত রাস্তা ও নাঁকুগাও স্থল বন্দরের অবকাঠামোর সুবিধা দেখে নেপালের রাষ্ট্রদূত সন্তোষ প্রকাশ করে বলেন এই বন্দরটি ব্যবহার করে নেপাল ও বাংলাদেশের ব্যবসায়ীরা উপকৃত হতে পারে। এ ক্ষেত্রে বাংলাবান্ধা স্থল বন্দরের চেয়ে আরো সহজতর রুট হতে পারে নাঁকুগাও স্থল বন্দর।

এসময় শেরপুর জেলা অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) মোক্তাদিরুল আহমেদ, নাঁকুগাও স্থল বন্দর আমদানী-রপ্তানীকারক সমিতির সভাপতি মোস্তাফিজুর রহমান মকুল ও সাধারণ অরুন সরকার। এছাড়াও রাষ্ট্রদূত স্থানীয় আমদানী-রপ্তানীকারকদের সাথে মতবিনিময় সভায়ও মিলিত হন।

নেপালী রাষ্ট্রদূত প্রতিনিধি দল বৃহস্পতিবার সকালে ময়মনসিংহ নগরীর ডা. কে জামান বিএনএসবি চক্ষু হাসপাতাল পরিদর্শন করেন। ডা. সাইফুজ্জামান পরাগ (কো-অর্ডিনেটর, বিএনএসবি চক্ষু হাসপাতাল) তাকে ফুলের শুভেচ্ছা দিয়ে অভ্যর্থনা জানান। এ সময় আরো উপস্থিত ছিলেন, ডা. সাইফুল ইসলাম ভূঞা (চিফ কনসালট্যান্ট বিএনএসবি চক্ষু হাসপাতাল), প্রফেসর ডঃ জাকির হোসেন, ট্রেজারার সৈয়দ ফেরদৌস রহমান প্রমূখ।

এছাড়াও বৃহস্পতিবার রাতে ময়মনসিংহ চেম্বার অব কমার্স এই ইন্ডাস্ট্রিতে ব্যবসায়ী নেতৃবৃন্দের সাথে বৈঠক করেন।

ময়মনসিংহ নগরীর দুর্গাবাড়ি রোডে অন্তত ১৬০ বছরের পুরোনো আর্যধর্ম জ্ঞান প্রদায়ীনি সভা ধর্মসভা দুর্গাবাড়ি মন্দির ১ সেপ্টেম্বর সন্ধ্যায় পরিদর্শণ করেছেন বাংলাদেশস্থ নিযুক্ত নেপালের রাষ্ট্রদূত ড. বংশী ধর মিত্র। মন্দিরের সভাপতি অধ্যাপক বিমল কান্তি দে’র সভাপতিত্বে সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে আরো বক্তব্য রাখেন, ময়মনসিংহ রামকৃষ্ণ আশ্রমের অধ্যক্ষ শ্রী মৎ স্বামী ভক্তিপ্রদানন্দজী মহারাজ, অ্যাডভোকেট বিকাশ রায়,স্বপন সেনগুপ্ত, অ্যাডভোকেট রাখাল সরকার, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্বা) সমর কান্তি বসাক, নেপালের হাইকমিশনের সেকেন্ড সেক্রেটারি রঞ্জন যাদব ও বিশিষ্ট চক্ষু বিশেষজ্ঞ ডাঃ হরি শংকর দাশ। অনুষ্ঠান পরিচালনা করেন দুর্গাবাড়ী মন্দিরের সেক্রেটারী ও ময়মনসিংহ চেম্বার অব কমার্স এন্ড ইন্ডাস্ট্রির সিনিয়র সহ-সভাপতি শংকর সাহা।

এর আগে বুধবার সকালে কমিউনিটি-বেজড মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেপালের শিক্ষার্থীদের সঙ্গে বৈঠক করেন রাষ্ট্রদূত। বিকেলে ময়মনসিংহ জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ এনামূল হকের সাথে সৌজন্য সাক্ষাৎ করেন।


মতামত জানান :

 
 
 
কপিরাইট © ময়মনসিংহ প্রতিদিন ডটকম - সর্বসত্ত্ব সংরক্ষিত | উন্নয়নে হোস্টপিও.কম