সংবাদ শিরোনাম

 

দীর্ঘ দুই দশক পর আবারও আফগানিস্তানের ক্ষমতায় বসতে যাচ্ছে তালেবানরা। তালেবান নেতাদের সাথে ৪৫ মিনিটের বৈঠকের পর পদত্যাগ করতে যাচ্ছেন দেশটির প্রেসিডেন্ট আশরাফ গনি।

বিভিন্ন সংবাদধ্যমের বরাত দিয়ে বিবিসি জানায়- কাবুলে হামলা করা হবে না, এমন শর্তে তালেবান বাহিনীর সাথে সমঝোতা হয়েছে।

এর আগে রবিবার (১৫ আগস্ট) চারদিক থেকে তালেবানরা রাজধানী কাবুলে ঢুকে পড়ছে— এমন খবর ছড়িয়ে পড়ে। এরপর প্রেসিডেন্ট আশরাফ গনি আমেরিকা ও ন্যাটোর শীর্ষ কর্মকর্তাদের সাথে জরুরি বৈঠকে বসেন। এরপরই ক্ষমতার শান্তিপূর্ণ হস্তান্তরে রাজি হয় আফগান সরকার। শুরু হয় অন্তর্বর্তী সরকার গঠনের সকল প্রক্রিয়া।

প্রেসিডেন্টের বাসভবনে অনুষ্ঠিত ৪৫ মিনিটের ওই বৈঠকে নেতৃত্ব দেন তালেবান প্রধান মোল্লা আবদুল গনি বরাদর। কাতার ও আমেরিকার কূটনীতিবিদরা সেখানে ছিলেন। আফগানিস্তানের পরবর্তী প্রেসিডেন্ট হতে পারেন মোল্লা আবদুল গনি বরাদর, যা অনেকটাই নিশ্চিত।

এর আগে তালেবানের মুখপাত্র সোহাইল শাহীন বলেন, দর কষাকষি চলছে। খেয়াল রাখা হচ্ছে সাধারণ মানুষ যাতে হিংসার বলি না হয়। তিনি জানান, তালেবানরা কাবুলে ঢোকেনি। তাদের শহরের বাইরে অবস্থান নিতে বলা হয়েছিল। তারা শান্তিপূর্ণ ক্ষমতা হস্তান্তরে আফগান সরকারের সহযোগিতার অপেক্ষা করছিলেন।

চলতি বছরের ৯ মার্চ আফগানিস্তান থেকে সেনা সদস্যদের সরিয়ে নিতে শুরু করে যুক্তরাষ্ট্র। এরপরই আক্রমণাত্মক হয়ে ওঠে তালেবান। জুন মাসের শেষ দিকে আফগান বাহিনীর সঙ্গে সংঘর্ষ বাঁধে তাদের। এরপরই দেশের দক্ষিণ প্রান্ত থেকে এগুতে শুরু করে তারা। বলা যায়, দেড় মাসের মধ্যেই আফগানিস্তানের দখল নিয়েছে তারা।


মতামত জানান :

 
 
 
কপিরাইট © ময়মনসিংহ প্রতিদিন ডটকম - সর্বসত্ত্ব সংরক্ষিত | উন্নয়নে হোস্টপিও.কম