সংবাদ শিরোনাম

 

এইচএসসি ও সমমানের পরীক্ষা শুরু হচ্ছে আগামী রোববার (৩০ জুন)। সারাদেশের শিক্ষার্থীরা যখন এ পরীক্ষা নিয়ে ব্যস্ত, তখন প্রবেশপত্র না পেয়ে হতাশায় জামালপুর শহরের বেলটিয়ায় ‘শাহাবুদ্দিন মেমোরিয়াল স্কুল অ্যান্ড কলেজে’র ৯৬ শিক্ষার্থী। কারণ তারা এখনো প্রবেশপত্রই পাননি।

এ ঘটনায় বৃহস্পতিবার (২৭ জুন) দুপুরে স্কুলের মূল ফটকে বিক্ষোভ করেন ভুক্তভোগী শিক্ষার্থী ও তাদের অভিভাবকরা।

শিক্ষার্থীরা জানান, ২৩ জুন সব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে প্রবেশপত্র বিতরণ করা হয়। কিন্তু তারা বিদ্যালয়ে গিয়ে জানতে পারেন যে, তাদের প্রবেশপত্র আসেনি। এরপর প্রতিষ্ঠানের অধ্যক্ষকে প্রবেশপত্র দেওয়ার জন্য অনুরোধ করেন। কিন্তু বৃহস্পতিবার সকালে বিদ্যালয়ে গিয়ে জানতে পারেন, এই শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের কলেজ পর্যায়ের কোনো অনুমোদন নেই। ফলে তাদের রেজিস্ট্রেশন ও ফরম ফিলাপ হয়নি।

অভিভাবকদের অভিযোগ, তাদের সন্তানরা দুই বছর এ বিদ্যালয়ে লেখাপড়া করেছে। এমনকি তারা নিয়মিত বেতন ও বিভিন্ন ফি পরিশোধ করেছে। এইচএসসি পরীক্ষার জন্য রেজিস্ট্রেশন বাবদ শিক্ষার্থীদের কাছ থেকে ১০-১২ হাজার টাকাও নেওয়া হয়। কিন্তু তাদের ফরম ফিলাপ ও রেজিস্ট্রেশন হয়নি। প্রিন্সিপালের অবহেলায় সন্তানদের পরীক্ষায় অংশ নেওয়া অনিশ্চিত হয়ে পড়েছে।

এ বিষয়ে শাহাবুদ্দিন মেমোরিয়াল স্কুল অ্যান্ড কলেজের প্রিন্সিপাল রেজাউল ইসলাম সেলিম মুঠোফোনে বলেন, ‘সব ঠিক হয়ে যাবে।’

অপরদিকে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানটির ভাইস প্রিন্সিপাল হুমায়ুন কবীর জানান, রেজাউল ইসলাম সেলিমকে প্রিন্সিপাল পদ থেকে সাময়িকভাবে অব্যাহতি দিয়েছে পরিচালনা পর্ষদ।

যেসব শিক্ষার্থীরা অভিযোগ করেছে তাদের সঙ্গে শাহাবুদ্দিন মেমোরিয়াল স্কুল অ্যান্ড কলেজের কোনো সম্পর্ক নেই বলেও দাবি করেন তিনি।

এ বিষয়ে জামালপুর জেলা প্রশাসক মো. শফিউর রহমান বলেন, বিষয়টি জানার পর অতিরিক্ত জেলা প্রশাসককে (শিক্ষা) দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে। তিনি বিষয়টি দেখভাল করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেবেন।


মতামত জানান :

 
 
 
কপিরাইট © ময়মনসিংহ প্রতিদিন ডটকম - সর্বসত্ত্ব সংরক্ষিত | উন্নয়নে হোস্টপিও.কম