সংবাদ শিরোনাম

 

বিএনপির কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক সৈয়দ এমরান সালেহ প্রিন্স ও ময়মনসিংহ মহানগর বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম আহ্বায়ক আবু ওয়াহাব আকন্দসহ ২৫ নেতাকর্মীর নামে মামলা করেছে পুলিশ। মামলায় আরও ১২০ জনকে অজ্ঞাত আসামি করা হয়েছে।

 

মঙ্গলবার (৩১ অক্টোবর) রাতে উপপরিদর্শক (এসআই) তাইজুল ইসলাম বাদী হয়ে কোতোয়ালি মডেল থানায় বিস্ফোরক আইনে মামলাটি করেন।

ময়মনসিংহ কোতোয়ালি মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ শাহ কামাল আকন্দ এসব তথ্য নিশ্চিত করেন। তিনি বলেন, ‘মঙ্গলবার (৩১ অক্টোবর) নগরীর পাটগুদাম ঢাকা রেললাইনের পূর্ব পাশে বিআরটিসি বাস কাউন্টারের সামনে রাস্তার ওপর বিএনপির নেতাকর্মীরা বেআইনিভাবে অবস্থান নেন। এ সময় তারা ককটেল বিস্ফোরণসহ দাঙ্গা-হাঙ্গামা সৃষ্টি এবং গাড়ি ভাঙচুর করেছেন। খবর পেয়ে পুলিশ আসতেই বিএনপির নেতাকর্মীরা ইটপাটকেল নিক্ষেপ করে। একপর্যায়ে পুলিশ পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। ঘটনাস্থল থেকে চারটি ককটেলের বিস্ফোরিত অংশ, যানবাহনের ২৫টি গ্লাসের ভাঙা টুকরো ও ৩৪টি ইটের টুকরো জব্দ করে পুলিশ।’

 

এই পুলিশ কর্মকর্তা আরও বলেন, ‘এ ঘটনায় জড়িত দুজনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। বাকিদের গ্রেফতারে অভিযান চলছে।’

এদিকে, ময়মনসিংহ জেলার বিভিন্ন থানায় অভিযান চালিয়ে পুলিশ বিএনপি-জামায়াতের ৪৮ নেতাকর্মীকে গ্রেফতার করেছে। সোমবার দিবাগত রাত থেকে মঙ্গলবার রাত পর্যন্ত কোতোয়ালি থানায় ১৬, ত্রিশালে ৯, মুক্তাগাছায় ৪, নান্দাইলে ৪, ঈশ্বরগঞ্জে ৩, ভালুকায় ৩, ধোবাউড়ায় ৩, গফরগাঁওয়ে ১, গৌরীপুরে ১, ফুলবাড়িয়ায় ১ ও ফুলপুরে তিন জনকে গ্রেফতার করা হয়।

 


মতামত জানান :

 
 
 
কপিরাইট © ময়মনসিংহ প্রতিদিন ডটকম - সর্বসত্ত্ব সংরক্ষিত | উন্নয়নে হোস্টপিও.কম